গুগল অ্যাডসেন্স

যে সব কারনে নন হোস্টেড গুগল অ্যাডসেন্স এপ্রুভ করে না

Last Updated on

 ব্লগের বয়স কেমন হলে :

এডসেন্স এর জন্য ব্লগের বয়সটা জরুরি। কারণ গুগল একদম নতুন বা ১/২ মাসের এডসেন্স সাইট দেয় না। ব্লগ এ এডসেন্স পেতে হলে আপনার ব্লগ এর বয়স নিম্নে ৫/৬ মাস হতে হবে এইটা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে হয়ে থাকে। অনেক সময় আরো একটু বয়স হলে ভালো কিন্তু সাইট এর স্ট্রাকচার ও ভালো আর্টিকেল থাকলে তাহলে কম বয়সেও এডসেন্স পেতে পারে। তবে যদি প্রথম বারেই অ্যাডসেন্স পেতে চান তাহলে ব্লগে সময় দিয়ে কিছু ভাল পোস্ট, কিছু ভাল ভিজিটর হবার পর আবেদন করুন এতে অ্যাডসেন্স ৯৯% পাবার চান্স থাকে। এর মধ্যে কোনো সমস্যা থাকলে করে না।

 ব্লগে ভিজিটর কত থাকতে হবে :
আপনার ব্লগে যদি ১০০০ মতন ভিসিটর থাকে তাহলে এডসেন্স পাবেন কিন্তু কম হলেও যে হবে না তা কিন্তু নয়। এইটা গুগল এর উপর ও মান সম্মত কনটেন্ট এর উপর নির্ভর করে।

সাইটের ডিজাইন এবং ন্যাভিগেশনঃ
সাইটের ডিজাইনটি অনেক গুরুত্তপুর্ণ। আপনার সাইটের ডিজাইন আপনার দক্ষতার প্রমান রাখে সুতরাং আপনার সাইট টিকে এমন ভাবে ডিজাইন করুন যাতে করে মনে হয় না সাইটি অনেক নতুন এবং এখনো কাজ চলছে তার মানে Under Construction। গুগল কক্ষনো আন্ডার কন্সট্রাকশন সাইটে অ্যাডসেন্সের এপ্রুভাল দেয়না। উৎকট কালার এবং অতিরিক্ত কালারফুল ব্যাকগ্রাউন্ড দিয়ে ডিজাইন করা সাইটের ৯০% ই এপ্রুভাল পায় না, তাই এসব ক্ষেত্রে সতর্ক হতে হবে। এছাড়াও সাইটের ন্যাভিগেশন লেভেলও ইজি হতে হয় আবার সাইটের পেজ ও লিংক স্ট্রাকচারও হতে হবে অবশ্যই স্টান্ডার্ড।

ওয়েবসাইট স্পীডঃ 
আমরা অনেকে এটি গুরুত্ব দেয় না। এটি অবশ্যই দেখবেন।
সাইট স্পীড স্কোর যাতে ৮০+ সব সময় থাকে সেটি লক্ষ রাখতে হবে। আর ১০০-১০০ করতে পারলে আরও ভাল 

গুরুত্বপূর্ণ কিছু পেজ তৈরিঃ
Privacy Policy পাতাঃ এটা একটা খুবই সাধারন ভুল যেটি সকলেই করে থাকে। গুগল একটি সাইটের Privacy Policy কে অনেক গুরুত্ত দেয়। Privacy Policy মূলত আপনার সাইটের ভিসিটর এবং পাঠকদের কি করা উচিত এবং কি উচিত নয়, আপনার ব্লগে তারা কি কি পাবে এবং আপনি আপনার ব্লগটিকে কিভাবে ব্যবহার করেন সেটি আলোচনা করে। তাই সাধারণ ভাবে একটি Privacy Policy পাতা থাকা জরুরী। নিজেই আপনি ব্লগের Privacy Policy পাতা তৈরি করে নিতে পারেন সেক্ষেত্রে কিছু সাইটের Privacy Policy পাতা গুলো পড়ে নিন কি বা কিভাবে লিখতে হবে বুঝার জন্য।

About Us পাতাঃ 
About Us পাতাটিও আপনার সাইটে অ্যাডসেন্স আপ্প্রুভাল পাওয়ার জন্য খুবই গুরুত্তপূর্ণ। আপনি যদি এই পাতাটি তৈরি না করে অ্যাডসেন্স এর আবেদন করেন তাহলে আপনার অ্যাডসেন্স আপ্প্রুভ হওয়ার সম্ভবনা খুবই কম। About Us পাতাটি মুলত আপনা বা আপনার সাইটের সম্পর্কে আলোচনা করে। কিভাবে সাইটা শুরু হল, কে বা কারা এই সাইটি দেখাশোনা করে এবং সাইটি কি কি বিষয় নিয়ে আলোচনা করে এসব তথ্য About Us পাতার মূল উপাদান। এজন্য অ্যাডসেন্স এ আবেদনের পূর্বে আপনাকে অবশ্যই একটি About Us পাতা তৈরি করে নিতে হবে। কয়েকটি সাইট ভিজিট করে তাদের About Us পাতাটি পড়ে নিয়ে লিখা শুরু করে দিন।

Contact Us পাতাঃ
Contact Us পাতা মুলত আপনার ভিসিটর এবং পাঠকদেরকে আপনার সাথে যোগাযোগ করার সুযোগ করে দেয়। Contact Us পেজের মাধ্যমে আপনার পাঠকেরা আপনার সাহায়্য পায় তার মানে আপনি আপনার ভিসিটর ও পাঠকদের কেয়ার (Care) করেন যেটা অ্যাডসেন্স পছন্দ করে। তাই আবশ্যই আপনার সাইটে একটি Contact Us পাতা তৈরি করবেন।

টপ লেভেল ডোমেইনঃ
ব্লগস্পট ডট কম দিয়ে অ্যাডসেন্স পাওয়ার দিন শেষই বলতে হবে। একটা সময় ছিলো যখন হয়তো খুব সহজেই সাব ডোমেইন গুলো দিয়ে এপ্লাই করেই এডসেন্স পাওয়া যেত। কিন্তু এখন আপনাকে এই নীতি চেঞ্জ করতে হবে। এখন দ্রুত অ্যাডসেন্স আপ্রুভাল পেতে হলে আপনার ব্লগটি অবশ্যই টপ লেভেল ডোমেইন হতে হবে যেমন com, net, org ইত্যাদি। যারা ব্লগস্পট বা সাব ডোমেইন দিয়ে অ্যাডসেন্স পাওয়ার স্বপ্ন দেখছিলেন তারা এখনি একটি টপ লেভেল ডোমেইন কিনে ফেলুন এটা অনেক ট্রাস্টেড অফশন হবে আপনার জন্য। ভিজিটরদের ভালো রেসপন্স পাওয়ার জন্যও টপ লেভেল ডোমেইন অত্যাবশ্যক।

সমস্যা সমাধান না করে আবার অ্যাপ্লাই করাঃ 
গুগল অ্যাডসেন্সে বার বার অ্যাপ্লাই দিবেন না। এতে আপনার ডোমেইনটি ব্ল্যাকলিস্ট করে দিতে পারে। এতে আপনার ডোমেইনটি পরবর্তীতে অ্যাপ্লাই করা যাবে না। ১ম অ্যাপ্লাই দেওয়ার পর কেন গুগল এপ্রুভ করেনি সেট গুগল জানাবে। আপনার কাজ হবে গুগল যে সমস্যা ধরবে তা ঠিক করে তারপর আবার অ্যাপ্লাই দেওয়া।

গুগল ওয়েবমাস্টার ও গুগল এনালাইটিক্সঃ
অ্যাডসেন্স অ্যাপ্লাই করার আগে অবশ্যই গুগল ওয়েবমাস্টার ও গুগল এনালাইটিক্স সেটআপ করে নিবেন এবং সমস্যা থাকেলে তা ঠিক করে তারপর অ্যাপ্লাই দিবেন।

অন্যান্য বিজ্ঞাপন নেটওয়ার্কঃ 
অনেক বিজ্ঞাপন আছে যা গুগল পলিসি সাপোর্ট করে না।
যেমনঃ popup, pop under ads. এ ছাড়াও আরও অনেক অ্যাড আছে যা গুগল সাপোর্ট করে না। ওরকম অ্যাড যদি সাইটে থেকে থাকে থাহলে অ্যাডসগুলো রিমুভ করুন। তারপর অ্যাপ্লাই দিন।

এ ছাড়াও আর অনেক কারন হতে পারে। কারো কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করুন। অ্যাডসেন্স নিয়ে যে কোন সমস্যার সমাধান পেতে আমাদের Group এ পোস্ট করুন।
ধন্যবাদ

About the author

মোজাহিদুল ইসলাম মিফতাহ

SEO & WORDPRESS SECURITY EXPERT. I’m a Freelancer with 5 years of experience in SEO (Search Engine Optimization), WordPress Security, AdSense, Blogging, & Social Media Marketing. I am Certified by Udemy, Google & Lynda. Level 2 Seller on Fiverr.

View all posts

Leave a Reply