এসইও এককালীন করলেই হবে – তারপর শুধু টাকা আর টাকা :)

সবাইকে স্বাগতম,

💥
  • Save
SEO Misconceptions Part 03
💥
  • Save
তে।

এর আগের দুইটা পর্ব পড়ে ফেলুন এখান থেকেঃ

পর্ব ০১ঃ https://www.facebook.com/groups/seobynshamim/posts/2874488582788423/

পর্ব ০২ঃ https://www.facebook.com/groups/seobynshamim/posts/2883542581883023/

আজকের পর্বে আমরা নতুন আরেকটা ভুল ধারণা নিয়ে আলোচনা করবো।

আমাদের দেশে এমন অনেক সেক্টর আছে যেগুলো আসলে একবার ভালোভাবে শিখলেই মোটামোটি কাজ চালানো যায়। যেমন ধরুন আপনি HTML5 শিখলেন। শেখার পর মার্কেটপ্লেসে ঐ রিলেটেড কাজগুলো করতে পারবেন। তবে এইসব ক্ষেত্রে স্কিলটা এক জায়গায়-ই থেকে যায় যদি না আপনি নতুন নতুন জিনিসগুলো এক্সপ্লোর করেন বা নতুন নতুন ফ্রেমওয়ার্ক ট্রাই না করেন। উত্তরোত্তর ভালো করতে হলে নিয়মিত শেখার কোন বিকল্প নেই।

তেমনি, অনেকে মনে করেন এসইও জিনিসটা ওয়েবসাইটে একবার ইমপ্লিমেন্ট করলেই হবে। একটা এসইও সার্ভিস এর গিগই যথেষ্ট। তারপর আর কোন কাজ নেই। এইজন্যে অনেকে এসইও সার্ভিস নেয় – এবং সার্ভিস শেষ হওয়ার পর মনে করে – তার আর কখনোই এসইও দরকার পড়বে না। ঠিক এসইও শেখার মতোই এসইও সার্ভিস একটা নিয়মিত নেয়া এবং দেয়ার একটা ব্যাপার। যে কোন ওয়েবসাইটে নিয়মিত এসইও এর ইস্যুগুলো টুইক করার কোন বিকল্প নেই।

এই রেগুলার এসইও সার্ভিসটা শুধু কর্পোরেট কোম্পানি বা ইকমার্স সাইট বা সার্ভিস বিজনেসের জন্যেই শুধু না – নর্মাল ব্লগ বা এফিলিয়েট সাইটের জন্যেও প্রযোজ্য।

এর পেছনে অনেকগুলো কারণ আছে। এক এক করে বলছি।

১। এসইও এর মূল জিনিসটাই হলো সার্চ ইঞ্জিন যেমন গুগল বা বিং এর জন্যে নিজের সাইট বা ক্লায়েন্টের সাইটকে অপ্টিমাইজ করা। মানে গুগল যেভাবে একটা সাইটকে দেখতে চায়; সেভাবেই আপনাকে আপনার সাইট রিপ্রেসেন্ট করতে হবে। কিন্তু গুগলের এই দেখতে চাওয়ার ব্যাপারটা আকাশের মেঘের মতো। ক্ষণে ক্ষণে ভোল পাল্টায়। নতুন নতুন রূপে আবির্ভাব হয়। আপনি যখন এসইও শিখবেন; আপনাকেও গুগলের সাথে সাথে চলতে হবে। আপনি যখন কোন একটা ক্লায়েন্টের কাজ করবেন; তখন তার সাইটেও নতুন নতুন রং লাগাতে হবে – নিয়মিত। আপনি যদি নিজে একজন ক্লায়েন্ট হন, তাহলে আপনার সাইটে এই নতুন নতুন সময় নতুন রং লাগানোর ব্যাপারটা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল থাকতে হবে। অন্যথায় – স্রোতের টানে ভাসতে ভাসতে খেই হারিয়ে ফেলবেন, পিছনে পড়ে থাকবেন কচুরিপানার মতো।

২। সার্চ অ্যালগোরিদম এখন আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নির্ভর। মানে, ইঞ্জিনিয়াররা যেভাবে ট্রেইন করে – অ্যালগোরিদমও সেভাবে রিঅ্যাক্ট করে। সার্চ ইঞ্জিনগুলোর এলগোরিদম শুধু ইঞ্জিনিয়ারদের উপর নির্ভরশীল না – সাধারণ মানুষ যা করে, যেভাবে সার্চ দেয়, একটা ওয়েবসাইটে এসে কি কি করে – সেগুলোও ঐ আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সকে ট্রেইন করে। ২০০০ সালের আগে মানুষ যেভাবে সার্চ দিতো, এখন সেভাবে দেয় না। মানুষের সার্চ করার প্যাটার্ন পরিবর্তিত হয়েছে, চিন্তা করার ধরন পাল্টেছে – এবং সর্বসাকুল্যে এইগুলো এআইকে চেঞ্জ করেছে প্রতিনিয়ত। এই সুপারসনিক গতির ইন্টেলিজেন্সগুলোর সাথে খাপ খাইয়ে চলতে গেলে নিয়মিত পড়াশুনা করতে হবে, শেখার মধ্যে থাকতে হবে, নিয়মিত ওয়েবসাইটের বিভিন্ন সেকশনে চেঞ্জ আনতে হবে। সুতরাং বলা যায় – এককালীন একটা এসইও সার্ভিস নিয়ে বা এককালীন একটা এসইও কোর্স করে বা কয়েকটা ভিডিও টিউটোরিয়াল দেখলেই সব কমপ্লিট হয়ে যায় না।

৩। আগে কি ভাবতাম বা করতাম আর এখন কি করছি? একটু খেয়াল করলেই সেটার একটা বিস্তর তফাৎ দেখতে পাবেন।

  • একসময় আমরা মনে করতাম ৫ – ১০ হাজার ওয়ার্ড এর কন্টেন্ট দিলেই কাজ শেষ। এখন সার্চ ইন্টেন্ট এর সাথে কন্টেন্ট এর উপযোগিতা বা প্রশ্নের সাথে উত্তরের এক্স্যাক্ট মিল – এইগুলো বেশী গুরুত্ব পাচ্ছে গুগল এবং অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিনের কাছে।
  • একসময় আমরা কিওয়ার্ড ফোকাস করতাম, রাইটারকে বলে দিতাম যে কন্টেন্টে কয়বার ম্যানশন করতে হবে কিওয়ার্ড। এখন এইটা দরকারই পরে না।
  • একটা সময় আমরা মেটা কিওয়ার্ড ইউজ করতাম, এখন দরকার পরে না।
  • একটা সময় আমরা অনেক সময় নিয়ে মেটা ডেসক্রিপশন লিখতাম, থিমের বাহ্যিক দিকগুলো নিয়ে ঘাটাঘাটি করতাম – কারণ কন্টেন্ট এর চেয়ে সাইটের রূপ-লাবণ্য প্রাধান্য পেতো। আর এখন শুধু কন্টেন্ট আর লিঙ্ক – আর বাইরের সব কিছু প্রায় মূল্যহীন।

সুতরাং দেখতেই পাচ্ছেন – একটা জিনিস শিখে সেখানে পড়ে থাকার ইন্ডাস্ট্রি এই এসইও নয়। নিজের জন্যে বা ক্লায়েন্টের জন্যে যার জন্যেই করেন – এসইও সার্ভিস বা এসইও কোর্স কখনোই একবার শিখে বা একবার নিয়ে বাকি জীবন কাজ করে যাওয়ার জন্যে উপযুক্ত নয় এই ইন্ডাস্ট্রিটা।

যারা নতুন কিছু শেখা শুরু করেন নাই, বা আপনার এসইও সার্ভিস এর আপগ্রেডেশন নিয়ে স্টাক হয়ে আছেন – আজ থেকে নতুন উদ্যমে শুরু করে দিন। 

আপনাদের কি মতামত?

💥
  • Save
💥
  • Save
শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন – লাখো বাঙ্গালির মিসকন্সেপশন দূর হউক! 🙂

#Misconceptions

আপনার ইমেইলে বাংলায় ইন্টারনেট মার্কেটিং এবং এসইও রিলেটেড লেটেস্ট খবর ও আপডেট পেতে চান? সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।

Leave a Comment

Share via
Copy link